বিখ‍্যাতের প্রতি ভালোবাসা!

গতকাল টিভিতে ক‍্যন্সারে মৃত‍্য হয়েছে এমন একজনের জীবরের উপর রিপোট দেখাচ্ছিল। আমি কাজে মগ্ন ছিলাম। হঠাৎ ক‍্যান্সারের কথা শুনে, আমি বউকে জিজ্ঞাসার করলাম – কে ইন্তেকাল করেছেন? বিখ‍্যাত কেউ?
 
আমার প্রশ্ন শুনে, বউ নীরব-নিথর! হতভম্ব দৃষ্টিতে অশ্রু ছলছল আবেগে বলল, “বিখ‍্যাতরাই কি মানুষ, অন‍্যরা কি মানুষ না? আপনার পরিবারে কে সবচেয়ে বিখ‍্যাত মানুষ ? আপনি, আমি নাকি অন‍্য কোন মহামানব?..”
 
কথাটা আমার লেগেছে।
 
আসলে এক অখ‍্যাত সদ‍্যপ্রায়াত ফুল চাষীর জীবন কাহিনী দেখানো হচ্ছিলো, যিনি মানুষকে আনন্দ দেয়ার জন‍্য ফুল চাষকে পেশা হিসাবে বেছে নিয়েছিলেন। বিখ‍্যাত ছিলেন না, সারজীবন ফুল চাষ করে গ্রামে কাটিয়েছেন । ফুলের প্রতি ভালোবাসার জন‍্য তিনি যৌবনে নিজ-খরচে বুলগেরিয়া এবং ফ্রান্সও ভ্রমন করেছিলেন।
 
সত‍্যিই, বাংলাদেশে আমারা কত মিথ‍্যা আবেগে, কত জটিলভাবে গড়ে উঠে! আমার বেড়ে উঠাও সাধারণ প্রবাহের বাহিরে নয়। বিখ‍্যাত হলে আমরা খারাপকেও গুরুত্ব দেই, গরু-ছাগলকেও মাঝে মাঝে সাধু-সন্ত বানাই! যার কারণে প্রায় সবাই গুরুত্ব পাওয়ার জন‍্য, বিখ‍্যাত হওযার প্রতিযোগিতায় গড্ডালিকা প্রবাহে গা ভাসিয়ে দেই! অথচ সব মানুষই মর্যাদায়,অধিকারে, স্বীকৃতিতে সমান! অথাকথিত বিখ‍্যাত হলেই শুধু মিডিয়াতে খবর আছে।
 
প্রতিদিন কত মানুষ যায়-আছে। প্রতিটি মানুষই তার পরিবার, সমাজ ও দেশের জ‍ন‍্য কত কাজই না করে, কত কিছুই না ভাবে, কতই না গুরুত্বপূর্ণ! যাদেরটা ক্লিক করে, যারা চৌকষ হয়, তথাকথিত স্মার্টনেসের সাথে নিজের ঢোল-বাজাতে জানে, অন‍্যকে দিয়ে বাজানো কাজটা করাতে পারে, তাদেরকেই আমরা বিখ‍্যাত বলি! চালাক এই মানুষগুলো নিয়ে আমারা বিজয়ের উল্লাসে মেতে উঠি। নিজের অমুন‍্য সময় নষ্ট করি!
 
নামকরা ব‍্যাক্তিদের ছবি তোলে বিখ‍্যাত হয়েছেন প্রিয় ফটোগ্রাফার নাসির আলী মামুন (Nasir Ali Mamun THE PORTRAIT MAN ) এক বক্তব‍্যে তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা যাদের বিখ‍্যাত জানি তাদের ব‍্যক্তিগত জীবন যদি শুনেন তবে হতভম্ব হয়ে যাবেন। অনেকে এত খারাপ মানুষ যে তাদের আশে-পাশে ভীড়তে চাইবেন না ! কারো করাে পরিবারিক জীবন ও সম্পর্ক নরকের মত দূর্বিসহ। আমি ৪০ বছের বেশী সময় ধরে তাদের অজানা কথা শুনেছি, জেনেছি , সহ‍্য করেছি, ভালোবেসে ছবি তুলেছি।…
 
( Many people contribute many ways, having right to be a famous. When many people know something and someone with tricks of promotions, becomes famous, but everybody does the good jobs as much as possible in the spheres of life. )
 
জুলাই ৩১st, ২০১৭|